কুমিল্লার কাছ থেকে জয় ছিনিয়ে নিলো খুলনা

ক্রীড়া প্রতিবেদক :

আগের দিন সিলেটকে হারিয়ে শেষ চারে জায়গা করে নেয়ার বড় সুযোগ পায় কুমিল্লা ওয়ারিয়র্স। পয়েন্ট টেবিলের পাঁচ নম্বর দল ওয়ারিয়র্সদের প্লে-অফে খেলার আশা যে একেবারে শেষ হয়ে যায়নি সেটিও না। খুলনা টাইগার্সরা বুধবার জিতলেও বাকি আছে আরও দুটি ম্যাচ। একটি কুমিল্লার বিপক্ষে, আরেকটি ঢাকা প্লাটুনের বিপক্ষে। এই দুই ম্যাচে খুলনা হারলে আর কুমিল্লা নিজেদের শেষ ম্যাচে জয় পেলে সেরা চারে জায়গা করে নিতে পারবে বলা যায়।

বঙ্গবন্ধু বিপিএলে দিনের প্রথম ম্যাচে খুলনার দেয়া ১৭৯ রান তাড়া করতে নেমে কুমিল্লার ব্যাটাররা জয়ের দারুণ সম্ভাবনা জাগিয়েও শেষ পর্যন্ত হেরে গেছে ৩৪ রানে।কুমিল্লার হয়ে সাব্বির রহমান খেলেন ৩৯ বলে ৭ চার ও দুই ছয়ে ৬২ রানের দুর্দান্ত ইনিংস। যদিও ডান-হাতি এই ব্যাটসম্যানকে যোগ্য সঙ্গ দিতে পারেননি সৌম্য সরকার, ইয়াসির আলীরা।সৌম্য ১৭ বলে ২২ রান করে ফেরেন রবি ফ্রাইলিঙ্কের বলে ক্যাচ দিয়ে। ইয়াসির আলীও দারুণ সম্ভাবনা দেখিয়ে ১৫ বলে ২৭ রান করে বিদায় নেন শাহিদুল ইসলামের বলে ক্যাচ দিয়ে।

শেষদিকে ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতায় ১৪৫ রানেই শেষ হয় কুমিল্লার ইনিংস। খুলনার হয়ে ৫ উইকেট নেন রবি ফ্রাইলিঙ্ক। দুটি করে উইকেট আদায় করেন শাহিদুল ইসলাম ও মোহাম্মদ আমীর। ১ উইকেট তুলেন শফিউল ইসলাম।এর আগে দুপুরে টস জিতে খুলনাকে ব্যাটিংয়ের আমন্ত্রণ জানায় কুমিল্লা। গেল ম্যাচে হাশিম আমলা দলে থাকলেও খেলানো হয়নি এই ম্যাচে।

খুলনার দুই ওপেনার নাজমুল হাসান শান্ত ও মেহেদী হাসান মিরাজের ৭১ রানের জুটি ভাঙেন সৌম্য সরকার। শান্তকে ফেরান ৩৮ (২৯) রানে। মিরাজ করেন ৩৯ বলে ৩৯ রান।তবে রিলে রুশোর ৩৬ বলে ৭১ রানের ইনিংসের সঙ্গে মুশফিকের ১৭ বলে ২৪ রানে ভর করে ২০ ওভারে ১৭৯ রান তোলে খুলনা টাইগার্স।খুলনা এই জয়ে ১২ পয়েন্ট নিয়ে চার নম্বরেই আছে। বাকি আছে আরও দুটি ম্যাচ। শেষ চার নিশ্চিতে এই দুই ম্যাচে জয়ের বিকল্প নেই বললেই চলে।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error

নিউজ টি শেয়ার করুন :)

Instagram
LinkedIn
Share
Follow by Email25