সিমেন্ট ক্রসিং জামে মসজিদ সংস্কারের দাবিতে এলাকাবাসী ও মুসল্লিদের বিশাল মানববন্ধন

 

প্রেস বিজ্ঞপ্তী:

নগরীর ইপিজেড থানাধীন ৩৯নং ওয়ার্ড সিমেন্ট ক্রসিং জামে মসজিদ সংস্কারের দাবিতে এলাকাবাসীও মুসল্লিদের বিশাল মানববন্ধন ২২জুন শুক্রবার বেলা ২টায় মসজিদ সংলগ্ন সড়কে তরুণ যুব সমাজ কর্মী মোঃ সাইফুর রহমান রনির সভাপতিত্বেও মোঃ ইকবাল হোসেন সুমনের সঞ্চালনায়ে অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা থেকে বক্তারা জানান,ময়লা-আবর্জনা,স্যাতঁসেতে অজুখানা,মসজিদের পিছনে হাটু পানি, প্রস্রাব-পায়খানার চলাচল পথে পরিত্যাক্ত নোংরা আর ইমাম –মোয়াজ্জিনের রুমে এখনো থাকার অযোগ্য অবস্থায় এবং র্দূগন্ধ পরিবেশে অজু করে মসজিদের যাওয়ার অবস্থা আছে,নিশ্চয় নাই।তবে এই পরিস্থিতি আজ থেকে ১০/১১বছরের আগের।

মসজিদের মোতয়াল্লি সংস্কার ওউন্নয়ন কাজ করবে করবে বলে এক যুগ পার করে দিলেন ।সামন্য বৃষ্টি হলে নিচতলায় হাটু থেকে কোমর সমান পানি উঠে।যার কারণে মোয়াজ্জিন অনেক সময় হাঁটু পানিতে দাড়িয়ে আযান দিতে দেখা গেছে বলে মানব বন্ধনে মুসল্লিরা অভিযোগ করে জানান।

নিয়মিত মুসল্লি আব্দুস সালাম আরো জানান,বর্তমান ইমাম ও খতিব আনোয়ারুল ইসলাম খান মসজিদের অযোগ্য অবস্থার কথা মোতওয়াল্লি কে সঠিক ভাবে না জানিয়ে বিভিন্ন অনিয়ম করে পঞ্চায়েত মুসল্লিদের সাতে খারাপ আচারণ ঐ সিমেন্ট ক্রসিং জামে মসজিদে নামাজ পড়তে না যেতে কড়া ভাষায় জানান্।

মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সাবেক কাউন্সিলর ও আঃলীগ নেতা হাজী মোঃ আসলাম বলেন,মসজিদ আল্লাহ’র ঘর, আর এই আল্লাহর ঘরের সংস্কার নামে মসজিদের মোতয়াল্লি যে স্বেচ্ছারিতা দেখাচ্ছে তা দীর্ঘ ১যুগ ধরে দক্ষিণ হালিশহরের সিমেন্ট ক্রসিংবাসী মেনে নিয়ে ধর্মের প্রতি অনুরাগ দিখেয়েছেন। তাই বলে অন্যায় কাজ মেনে নিবে না।দ্রুত সংস্কার বা উন্নয়ন কাজ আগামী ১মাসের মধ্যে ঘোষনা না দিলে এলাকাবাসী ও মুসল্লিদের সমন্বয়ে বিভিন্ন অনিয়ম,দূর্নীতির কথা গুলো স্থানীয় সাংসদ, জেলা প্রশাসক,ধর্মমন্ত্রনালয়ে স্মারক লিপি দিয়ে জানাবেন বলে হুশিয়ারী দেন্‌।

বিশেষ অতিথি সমাজ সেবী ও সাবেক ফুটবলার মাহাবুব এলাহি বলেন,মোতয়াল্লি সংস্কার ওউন্নয়ন কাজ করতে না পারলে এলাকাবাসী-মুসল্লিদের কাছে সিমেন্ট ক্রসিং জামে মসজিদটি  ছেড়ে দিয়ে দেখুন আমরা দক্ষিণ হালিশহরের সিমেন্ট ক্রসিংবাসী দ্রুত উন্নয়ন করতে পারি কি না।এই পরিস্থিতির সহসায় উদ্যোগ না নিলে মোতয়াল্লি কে অবাঞ্চিত ঘোষনা দিয়ে বাড়ী ঘেরাও কর্মসূচি দিতে বাধ্য হবেন বলে জানান।

এসময় আরো বক্তব্য রাখেন ৩৯নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রতিনিধি আব্দুর রউফ,সাবেক কাউন্সিলর রাসেলের প্রতিনিধি হোসনী মোবারক রিয়াদ,হাজী আবছার মেম্বার,আক্কাস সওদাগর,এডঃ বরকত উল্লাহ খান,শ্রমিক নেতা ওসমান আলী, আব্দুল হালিম,মুনসুর আলী,মোশারফ হোসেন রুবেল,হাবিব উল্লাহ, মনজু, মোঃ ইলিয়াছ ,আব্দুস সালাম ,আবু তাহের প্রমুখ্।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error

নিউজ টি শেয়ার করুন :)

Instagram
LinkedIn
Share
Follow by Email