বক্তব্য প্রদান কালে মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন

সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও মাদকবিরোধী কঠোর অবস্থান নেওয়া হবে-মেয়র নাছির

আলোকিত সমাজ গড়তে নগরীকে সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও মাদকমুক্ত করতে হবে মন্তব্য করে মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, এ লক্ষ্যে মাদকাসক্ত ঘৃণ্য ব্যক্তিদের চিহ্নিত করে তাদের ছবি গণমাধ্যম এবং সমাজে ছড়িয়ে দেওয়া হবে। ফলে জনগণ এদের ঘৃণার চোখে দেখবে।

সবার বসবাসযোগ্য নিরাপদ নগরীর স্বার্থে জনগণের ঐক্যবদ্ধ শক্তিকে সামনে নিয়ে নগরীর ৪১টি ওয়ার্ডে সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও মাদকবিরোধী কঠোর অবস্থান নেওয়া হবে।

বৃহস্পতিবার (৫ এপ্রিল) সকালে চট্টগ্রাম নগরীর ৭ নম্বর পশ্চিম ষোলশহর ওয়ার্ডের আজাদ কমিউনিটি সেন্টারে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশনের (চসিক) উদ্যোগে সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ ও মাদকবিরোধী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মেয়র এসব কথা বলেন।

সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন ৭ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর এম মোবারক আলী। চসিকের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. আবদুর রহিমের সঞ্চালনায় সমাবেশে বিশেষ অতিথি ছিলেন চসিকের আইনশৃঙ্খলাবিষয়ক স্থায়ী কমিটির সভাপতি এইচএম সোহেল, ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. গিয়াস উদ্দিন, হাসান মুরাদ বিপ্লব, সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর জেসমিন পারভীন জেসী, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আফিয়া আখতার, স্পেশাল ম্যাজিস্ট্রেট (যুগ্ম জেলা জজ) জাহানারা ফেরদৌস, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের উপ পরিচালক (মেট্রো) শামিম আহমদ।

সমাবেশে মতামত দেন সাম্যবাদী দলের অমূল্য রঞ্জন বড়ুয়া, ইসকান্দর মিয়া, আবদুল মালেক, আনোয়ারুল ইসলাম বাপ্পী, মো. নাছির আলম, স্বপন মোল্লা, মনসুর রহমান চৌধুরী, আবু তাহের, রেজাউল বাহার, ইসকান্দর ইস্কু, সাইফুদ্দিন, নজরুল ইসলাম, অধ্যাপক এনামুল হক, নুরুল ইসলাম ইছু, জাবেদুল ইসলাম, শামিমা আফরিন মুক্তি, কান্তা ইসলাম মিনু, হোসনেআরা পারুল প্রমুখ।

মেয়র বলেন, পরিসংখ্যানে দেশে ৭০ লাখ মাদকসেবীর তথ্য জানা যায়। এদের স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনার জন্য সমাজ, দেশ ও পরিবারকে কার্যকর উদ্যোগ নিতে হচ্ছে।

সবার সহযোগিতা চেয়ে মেয়র বলেন, প্রতিটি ওয়ার্ডে এবং পাড়া-মহল্লায় কমিটি গঠন করে মাদকসেবী, বিক্রেতা, সন্ত্রাসী ও জঙ্গি কার্যক্রমে লিপ্তদের চিহ্নিত করে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error

নিউজ টি শেয়ার করুন :)

Instagram
LinkedIn
Share
Follow by Email