লিওনেল মেসির ছায়া থেকে বের হওয়া অপচেষ্টা মাত্র: নেইমার

মেসি, সুয়ারেজ, নেইমার এই তিনজনকে অন্তত ফুটবল বিশ্ব কখনো ভুলতে পারবে না। বার্সার ত্রিফলা বলা হতো এ তিনজনকে। গত গ্রীষ্মে এই ত্রিফলার এক ফলা ছেঁটে নেয় পিএসজি। রেকর্ড ট্রান্সফারে পিএসজিতে গিয়েও শান্তিতে নেই ব্রাজিলের সেনসেশন নেইমার। বার্সা ছেড়ে যাওয়ার পর বলা হয়েছিল মেসির ছায়া থেকে বের হতেই নাকি তিনি বার্সা ছেড়েছিলেন। আসলেই কি তাই? অল্পতে হলেও অবশেষে নিজের ভুল বুঝতে পারলেন নেইমার। বার্সেলোনা ছাড়াটা ঠিক হয়নি তার। তাই পিএসজি ছেড়ে ফের ন্যু ক্যাম্পে ফিরতে চাচ্ছেন তিনি।

ক্লাবের সঙ্গে সম্পর্কে ছেদ পড়লেও বন্ধুদের সঙ্গে সম্পর্কে ভাটা পড়েনি কখনো। মাঝে মধ্যেই সুযোগ পেলে একবার করে হলেও ঢুঁ মেরে যান বার্সেলোনায়। আর মেসির সঙ্গে তার অন্যরকম বন্ধুত্ব এটাতো বিশ্বব্যাপী সবাই জানে। চোটের কারণে আপাতত মাঠের বাইরেই, লক্ষ্য এখন বিশ্বকাপ।

হয়তো এই অবসরে বুঝতে পেরেছেন, বার্সেলোনা থেকে চলে আসাটা ভুলই ছিল। মুন্দো দেপোর্তিভোর ধারণা বার্সার খেলোয়াড়দের সঙ্গে যোগাযোগ রাখা শুধুমাত্র বন্ধুত্বের খাতিরে নয়, যাতে বিপদে আবারও ফিরতে পারেন সে উদ্দেশ্যেও। সে সময়টা সম্ভবত কাছাকাছি চলে এসেছে।

নেইমারের কাছে এখন মনে হচ্ছে মেসির থেকে দূরে চলে আসা তার জন্য ভালো নয়, বরং খারাপ হয়েছে। পিএসজির অসাধারণ প্রকল্পের কথা শুনে মোহে পরেছিলেন। কিন্তু এখন বুঝতে পারছেন, এটা কখনই সম্ভব নয়। আর লিগ ওয়ানের খেলার মানটাও উপভোগ করতে পারছেন না নেইমার।

স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম মুন্দো দেপোর্তিভো জানিয়েছে, প্যারিসে ভালো নেই নেইমার। কোচ ও সতীর্থদের সঙ্গে বনিবনা হচ্ছে না তার। লিগ ওয়ানের খেলার মানও পছন্দ নয়। বড় টুর্নামেন্টে ভালো করা যাবে বলেও মনে করতে পারছেন না তিনি। সার্বিক দিক বিবেচনা করে ফের বার্সার ডেরায় ভিড়তে চাচ্ছেন ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড।

মুন্ডো দেপর্তিভ’র দাবি,

এরই মধ্যে বার্সেলোনার কর্মকর্তা এবং খেলোয়াড়দের সঙ্গে যোগাযোগ শুরু করেছেন। তাদেরকে বার্সেলোনায় ফেরার নিজের আগ্রহের কথা জানিয়েছেন।

গত আগস্টে ট্রান্সফার ফির বিশ্বরেকর্ড (২২২ মিলিয়ন ইউরো) গড়ে বার্সা ছেড়ে পিএসজিতে পাড়ি জমান নেইমার। এর পর থেকেই দ্যুতি ছড়াচ্ছেন তিনি। এরই মধ্যে নিজেকে প্যারিসের প্রিন্স হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছেন।

তবে দলীয় পারফরম্যান্সে সন্তুষ্ট নন ব্রাজিলিয়ান তারকা। সন্তুষ্ট নন কৃষ্টি-কালচারে সমৃদ্ধ নগরীর সতীর্থদের পারফরম্যান্সেও। তাদের ব্যর্থতায় সদ্যই চ্যাম্পিয়নস লিগ থেকে ছিটকে গেছেন প্যারিসিয়ানরা। এর পরই সেখানে নিজের ভবিষ্যৎ নিয়ে শংকায় পড়েছেন তিনি। ফলে ফিরতে চাচ্ছেন সাবেক ক্লাবে।

নেইমার জানিয়েছেন, বার্সা ছাড়া ভুল ছিল তার। লিওনেল মেসির ছায়া থেকে বের হওয়া অপচেষ্টা মাত্র। ফরাসি লিগ ওয়ানে প্রতিপক্ষ দলগুলোর খেলার মানও ভালো নয়। তাই পুরনো বন্ধু মেসি-সুয়ারেজদের সঙ্গে ফের জুটি বাঁধতে চাচ্ছেন তিনি।

পিএসজির হয়ে খেলতে গিয়ে মার্সেইয়ের বিপক্ষে ডান পায়ে চোট পান নেইমার। এতে তার পায়ের পাতার হাড় ভেঙে যায়। সদ্য এর সফল অস্ত্রোপচার হয়েছে। এখন তিনি রিও ডি জেনেরিওতে নিজের বিলাসবহুল বাড়িতে বিশ্রাম নিচ্ছেন। এ অবস্থাতেই বার্সায় ফিরতে তোড়জোড় শুরু করেছেন হালের ক্রেজ।

দীর্ঘদিন ধরে নেইমারে চোখ করে রয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। বারবার ব্যর্থ হলেও এবার আর তাকে বেহাত করতে চান না গ্যালাকটিকোরা। আগামী গ্রীষ্মেই ফুটবল সেনসেশনকে দলে টানার পরিকল্পনা আঁটছেন তারা। এখন দেখার বিষয় চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী দুই দলের কার ডেরায় ভেড়েন তিনি।

এদিকে স্প্যানিশ আরেক গণমাধ্যম এএস জানিয়েছে, নেইমারের বাবা গত সপ্তাহে রিয়াল মাদ্রিদের কর্মকর্তার সঙ্গে প্যারিসে দেখা করেছেন। রিয়াল মাদ্রিদ তাকে পেতে ৪০০ মিলিয়ন খরচ করতে আগ্রহী। সেটাও জানিয়ে দেয়া হয়েছে।

বিষয়টি নিয়ে কৌশলী উত্তর দিয়েছেন রিয়াল মাদ্রিদ বস জিনেদিন জিদান, নেইমার বিশ্বের যে কোনো ক্লাবে খেলার সামর্থ্য রাখে। ও দারুণ একজন খেলোয়াড়। ও আমার খেলোয়াড় নয় তাই তাকে নিয়ে বেশি কথা বলতে আগ্রহী নই। তাকে ৪০০ মিলিয়ন দিতে প্রস্তুত! পিএসজিতো ২২২ মিলিয়নে নিয়েছে। আমাকে যখন রিয়াল নিয়েছিল তখন দিয়েছিল মাত্র ৭২ মিলিয়ন। ঠিকই আছে, এক বছরের ব্যবধানে সেটা ৪০০ মিলিয়নও হতে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error

নিউজ টি শেয়ার করুন :)

Instagram
LinkedIn
Share
Follow by Email