রেকর্ড খাতায় সাকিবের পাশে হোল্ডার

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

ইংল্যান্ড-ওয়েস্টইন্ডিজ টেস্টে ইংল্যান্ডের টপঅর্ডার রীতিমত নাকানিচুবানি করে দিয়েছেন ক্যারিবীয় ফাস্টবোলার’রা।শুরুটা করেছিলেন শ্যানন গ্যাব্রিয়েল।

৫১ রানে ৩ উইকেট হারানো ইংলিশরা যেন আর উঠে দাঁড়াতে না পারেন,পরে সে কাজটা সম্পূর্ণ করেছেন জ্যাসন হোল্ডার। চা বিরতির আগেই ধুঁকতে থাকা ইংল্যান্ডের ব্যাটিং ভেঙে দিয়েছেন হোল্ডার।

সাউদাম্পটন টেস্টের প্রথম ইনিংসে ইংল্যান্ড অলআউট ২০৪ রানে।সাউদাম্পটন টেস্টের বৃষ্টিবিঘ্নিত প্রথম দিনে যে ১৭.৪ ওভার খেলা হয়েছিল, তখনই নড়বড়ে দেখা গেছে ইংলিশ ব্যাটিং লাইনআপ।

পরদিন বৃষ্টি বাধা না দিলেও মেঘাচ্ছন্ন রোজবোলে ইংল্যান্ডকে একেবারেই করে এগোতে দেননি ক্যারিবীয় দুই ফাস্ট বোলার।

হোল্ডার নিজের সর্বশেষ ১০ টেস্টে একটি উইকেট পেতে তাঁর খরচ করতে হয়েছে মাত্র ১৪ রান। সাউদাম্পটনেও ব্যতিক্রম হয়নি।

এদিকে সাউদাম্পটন টেস্টে ইংল্যান্ডের সাথে প্রথম ইনিংসে অধিনায়ক হিসেবে ৫ উইকেট নিয়ে আমাদের সাকিব আল হাসানের পাশে জায়গা করে নিয়েছেন জেসন হোল্ডার।

ক্যারিবিয় অলরাউন্ডার জেসন হোল্ডার একাই নিয়েছেন ৪২ রানে ৬ উইকেট। টেস্ট ক্রিকেটে এটি তাঁর সেরা বোলিং ফিগার। হোল্ডারের আগের সেরা বোলিং ছিল ২০১৮ সালে, বাংলাদেশের বিপক্ষে জ্যামাইকায় ৫৯ রানে ৬ উইকেট।

সাউদাম্পটনে ব্যক্তিগত অর্জনে দ্যুতি ছড়ানো হোল্ডার নাম লিখিয়েছেন বেশ কিছু নজিরে। গত ২০ বছরের টেস্ট ক্রিকেটে অধিনায়কদের মধ্যে সেরা বোলিং ফিগারের ছোট্ট তালিকার চারে উঠে এসেছেন হোল্ডার। রঙ্গনা হেরাথ, শন পোলক, সাকিব আল হাসানের পর এখন হোল্ডারের স্থান। শীর্ষ পাঁচে আছেন আফগানিস্তানের লেগি রশিদ খানও।

২০১৬ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে হারারে টেস্টে শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক ছিলেন টেস্ট ক্রিকেটে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি বাঁ হাতি স্পিনার হেরাথ। তাঁর ৬৩ রানে ৮ উইকেট নেওয়ার গত ২০ বছরে অধিনায়কদের মধ্যে সেরা বোলিং ফিগার। ২০০১ সালে কেপটাউনে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৩০ রানে ৬ উইকেট নিয়েছিলেন তখনকার প্রোটিয়া অধিনায়ক পোলক।

২০১৮ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতে সাকিবের ৩৩ রানে ৬ উইকেট টেস্টে এক ইনিংসে অধিনায়কদের সেরা বোলিং ফিগারে তৃতীয় সেরা। হোল্ডারের ৪২ রানে ৬ উইকেটের পর গত সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশের বিপক্ষে ২০১৯ সালের চট্টগ্রাম টেস্টে আফগান অধিনায়ক রশিদ খান নেন ৪৯ রানে ৬ উইকেট।

অধিনায়কদের আরেক রেকর্ডে সাকিবের পাশে জায়গা করে নিয়েছেন ২৮ বছর বয়সী এ অলরাউন্ডার। ২০১০ সালে ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ১২১ রানে ৫ উইকেট নেন তখনকার অধিনায়ক সাকিব। গত ১০ বছরে অধিনায়কদের মধ্যে সাকিব ও হোল্ডার ছাড়া ইংল্যান্ডে আর কেউ ৫ উইকেট পাননি।

রেকর্ডের খাতায় জায়গায় করে নিয়ে সাকিব এবং হোল্ডার পাশাপাশি অবস্থান করছেন।

নাগরিকনিউজ/ইমন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error

নিউজ টি শেয়ার করুন :)

Instagram
LinkedIn
Share
Follow by Email