মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃতির অভিযোগে ঢাবি শিক্ষক ড. মোর্শেদকে অব্যাহতি

বঙ্গবন্ধুকে অবমাননার কারণে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) মার্কেটিং বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক ড. মোর্শেদ হাসান খানকে একাডেমিক ও প্রশাসনিক সব ধরনের কাজ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।সোমবার সন্ধ্যায় বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দপ্তর থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে এই তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৬ মার্চ দৈনিক নয়া দিগন্ত পত্রিকায় প্রকাশিত ‘জ্যোতির্ময় জিয়া’ শীর্ষক প্রবন্ধে বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস বিকৃতি ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে অবমাননার অভিযোগে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। উদ্ভূত পরিস্থিতি বিবেচনা করে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত  অধ্যাপক ড. মো. মোর্শেদ হাসান খানকে বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাডেমিক ও প্রশাসনিক সকল কার্যক্রম থেকে অব্যাহতি প্রদান করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয় রেজিস্ট্রার দপ্তর থেকে পাঠানো এক পত্রের মাধ্যমে জানানো হয়েছে এই আদেশ তাৎক্ষণিকভাবে কার্যকর হবে।২৬ মার্চ নয়া দিগন্ত দৈনিকের অনলাইন ভার্সনে ‘জ্যোতির্ময় জিয়া’ শিরোনামে মোর্শেদ হাসানের লেখা একটি মতামত প্রকাশিত হয়।

সেই নিবন্ধে তিনি বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানকে বাংলাদেশের স্বাধীনতার ঘোষক বলে দাবি করেন। পরে ২৭ মার্চ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে লেখাটির জন্য ক্ষমা চান এবং লেখা প্রত্যাহারের ঘোষণা দেন।অধ্যাপক মোর্শেদ হাসান খানের নিবন্ধ ‘জ্যোতির্ময় জিয়া’ প্রকাশিত হওয়ার পর চারিদিকে সমালোচনা, বিক্ষোভ শুরু হয়। ছাত্রলীগ ২৭ মার্চ ব্যবসায় অনুষদের সামনে বিক্ষোভ করে তাকে ক্যাম্পাসে অবাঞ্চিত ঘোষণা করে।

বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বরখাস্তের দাবিতে ২৮ মার্চ উপাচার্যকে স্মারকলিপিও দেয় ছাত্রলীগ।মোর্শেদ হাসান খান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিএনপি-জামায়াতপন্থী শিক্ষকদের সংগঠন সাদা দলের যুগ্ম-আহ্বায়ক হিসেবে বর্তমানে দায়িত্ব পালন করছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error

নিউজ টি শেয়ার করুন :)

Instagram
LinkedIn
Share
Follow by Email