মাহজাবিন মোর্শেদ ও তপন চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগ করেছেন সোলায়মান আলম শেঠ

নিজস্ব সংবাদদাতা :

চট্টগ্রাম মহানগর জাতীয় পার্টির সভাপতি ও সহসভাপতি পরিচয় দিয়ে জাতীয় পার্টির সংরক্ষিত মহিলা সাংসদ মাহজাবিন মোর্শেদ ও চট্টগ্রাম মহানগর জাতীয় পার্টির যুগ্ম আহবায়ক তপন চক্রবর্তী বিভিন্নভাবে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করছেন বলে অভিযোগ করেছেন জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও চট্টগ্রাম মহানগর জাতীয় পার্টির আহবায়ক সোলায়মান আলম শেঠ। 

বৃহস্পতিবার জাতীয় পার্টি চট্টগ্রাম মহানগর এর প্যাডে মহানগর জাতীয় পার্টির যুগ্ম আহবায়ক তপন চক্রবর্তীর কাছে পাঠানো এক চিঠিতে সোলায়মান আলম শেঠ উল্লেখ করেন, আপনি দীর্ঘদিন জাতীয় পার্টি চট্টগ্রাম মহানগরের সিনিয়র সহসভাপতি এর দায়িত্বে ছিলেন।কিন্তু আপনি সাংগঠনিক কার্যক্রম পরিচালনা করিতে ব্যর্থ হওয়ায় জাতীয় পার্টির মাননীয় চেয়ারম্যান হুসেইন মোহাম্মদ এরশাদ গঠনতন্ত্রের ক্ষমতা বলে বিগত ১০/০১/২০১৮ইং আপনাকে উক্ত দ্বায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দিয়া জাতীয় পার্টি প্রেসিডিয়াম সদস্য জনাব সোলায়মান আলম শেঠকে চট্টগ্রাম মহানগর জাতীয় পার্টির আহবায়ক মনোনিত করিয়া ১০১ সদস্য বিশিষ্ঠ আহবায়ক কমিটি অনুমোদন দেন।উক্ত কমিটিতে আপনি একজন সম্মানিত সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক। 

কিন্তু ইদানিং বিভিন্ন পত্রপত্রিকা ও অনলাইন মিডিয়াতে এখনো আপনি মহানগর জাতীয় পার্টির সিনিয়র সহসভাপতি হিসাবে প্রচার চালাচ্ছেন। যা সংগঠন বিরোধী ও গঠনতন্ত্রের পরিপন্থী। উক্ত কার্যকলাপের ফলে সংগঠনের কার্যক্রমে ব্যাঘাত ও কর্মীদের মাঝে বিভ্রান্তির সৃষ্ঠি হচ্ছে। সংগঠন বিরোধী উক্ত কার্যক্রম হইতে আপনাকে বিরত থাকার জন্য অনুরোধ করা যাইতেছে।

অন্যথায় গঠনতন্ত্র অনুযায়ী আপনার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়া হইবে। 

চিঠিটির অনুলিপি জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও মহাসচিব বরাবরে দেয়া হয়েছে বলে জানান সোলায়মান আলম শেঠ। 
এ প্রসঙ্গে সোলায়মান আলম শেঠ নাগরিকনিউজ বিডি কে বলেন আমরা কেউ দলের উদ্ধে নোই নই ,তাছাড়া তপন চক্রবর্তী নিজের ভুল স্বীকার করে মুঠো ফোনে কথা হয়েছে বলে জানান , জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মোহাম্মদ এরশাদ চট্টগ্রাম মহানগর জাতীয় পার্টির আহবায়ক কমিটি গঠন করে দিলেও মাহজাবিন মোর্শেদ ও তপন চক্রবর্তী সভাপতি ও সহসভাপতি পরিচয় দিয়ে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করছেন।

এছাড়া মাহজাবিন মোর্শেদ দলীয় ফান্ডের অর্থ নিয়েও দূর্নীতি করে চলেছেন। এজন্য তাদেরকে সতর্ক করে চিঠি দিয়েছি। 
তারা যদি এভাবে বারবার দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ করে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error

নিউজ টি শেয়ার করুন :)

Instagram
LinkedIn
Share
Follow by Email