মানুষকে সেবা দেয়ার মানসিকতাটা ডাক্তার ও নার্সদের থাকতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

চিকিৎসক ও নার্সদের উচিত রোগীদের সঙ্গে ভালো ব্যবহার করা। রোগীদের প্রতি সহানুভূতিশীল হওয়া। কিন্তু যখন দিনে সরকারি চাকরি আর রাতে বেসরকারি চাকরি করেন তখন তো মেজাজ খারাপ হবেই। বললেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শনিবার(১২ মে) সকালে রাজধানীর মুগদায় ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব অ্যাডভান্সড নার্সিং এডুকেশন অ্যান্ড রির্সাস উদ্ধোধন অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, একজন মানুষ যখন রোগী হয়ে হাসপাতালে আসে, তখন ওষুধের চেয়েও ডাক্তার বা নার্সের ব্যবহার, কথাবার্তা ও সহানুভূতিশীল মনোভাব থেকেই অর্ধেক রোগী ভালো হয়ে যেতে পারে। মানুষকে সেবা দেয়ার মনোভাবই হচ্ছে ডাক্তার ও নার্সদের এই পেশার সবচেয়ে বড় কথা। তাদের মধ্যে সবসময় এই মানসিকতাটা থাকতে হবে। আন্তরিকতা, দায়িত্ববোধ এই বিষয়গুলো অনেক গুরুত্বপূর্ণ।

শেখ হাসিনা বলেন, আমাদের দেশে লোকসংখ্যার তুলনায় ডাক্তার-নার্স এত কম ও তাদের এত বেশি রোগী দেখতে হয় যে, সবসময় সবার মেজাজ ঠিক রাখাও বেশ কঠিন হয়ে পড়ে। এক্ষেত্রে চিকিৎসকদের নিজেদের একটু সংযত হওয়া দরকার।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আছে বলেই বাংলাদেশ আজ মহাকাশ জয় করেছে। আমরা যখনই ক্ষমতায় আসি দেশে উন্নয়ন হয়, বিশ্ব দরবারে দেশ মাথা উচু করে দাঁড়ায়। স্যাটেলাইট উৎক্ষেপণের মাধ্যমে বিশ্বে বাংলাদেশ স্বাধীন জাতি হিসাবে উচ্চ মর্যাদা অর্জন করেছে।

আজ আন্তর্জাতিক নার্স দিবস। ১৮২০ সালের ১২ মে ইতালির ফ্লোরেন্স শহরে নার্সিং পেশার রূপকার ফ্লোরেন্স নাইটিঙ্গেল জন্মগ্রহণ করেন। তার সম্মানে ১২ মে বিশ্বব্যাপী দিবসটি উদযাপিত হয়।

বিশ্বের অন্য দেশের মতো বাংলাদেশেও নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দিবসটি পালিত হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error

নিউজ টি শেয়ার করুন :)

Instagram
LinkedIn
Share
Follow by Email