মাগুরার শালিখা থানার ওসির বিরুদ্ধে মামলা

নিউজ ডেস্কঃ ২০ হাজার ইয়াবা বড়িসহ তিন মাদক ব্যাবসায়ীকে আটকের পর মাত্র ২২০ পিস ইয়াবার মামলা প্রদান করায় মাগুরার শালিখা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রবিউল ইসলামের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

শালিখা উপজেলার সাবলাট গ্রামের প্রয়াত স্কুলশিক্ষক বিশারত মোল্যার ছেলে মহব্বত হোসেন বাদী হয়ে বুধবার জেলা জজ আদালতের দুর্নীতি দমন ট্রাইব্যুনালে মামলাটি দায়ের করেন।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত ৩১ মার্চ কক্সবাজারের টেকনাফ এবং নারায়ণগঞ্জের তিন মাদক ব্যবসায়ী বিপুল পরিমাণ ইয়াবাসহ শালিখা উপজেলার সাবলাট গ্রামের অপর মাদক ব্যবসায়ী কামরুল ইসলামের বাড়িতে অবস্থান করছিলেন।

বিষয়টি জানতে পেরে ওই গ্রামের বিশারাত মোল্যার ছেলে মহব্বত হোসেন গ্রামবাসীকে সঙ্গে নিয়ে ২০ হাজার পিস ইয়াবাসহ টেকনাফের সাবরাম শিকদার পাড়ার জামাল হোসেন, একই উপজেলার গুচ্ছগ্রামের সালিমুল্লাহ এবং নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলার বিষনন্দী গ্রামের ইউসুফ আলিকে পুলিশে ধরিয়ে দেন।

কিন্তু এই ঘটনার পর তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হলেও শালিখা থানার ওসি রবিউল ইসলাম উদ্ধারকৃত ইয়াবার পরিমাণ ২২০ পিস উল্লেখ করে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা সরিয়ে ফেলেন।

ওসি রবিউল ইসলামের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলার আইনজীবী গোলাম নবী শাহিন জানান, বুধবার আদালতে মামলাটি দাখিল করা হলে দুর্নীতি দমন ট্রাইব্যুনালের বিজ্ঞ বিচারক শেখ মফিজুর রহমান মামলাটি আমলে নিয়ে দুর্নীতি দমন কমিশনকে তদন্তের দায়িত্ব দিয়েছেন।

এ ঘটনায় ওসি রবিউল ইসলামের সঙ্গে সরকারি মোবাইল নম্বরে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও সংযোগ পাওয়া যায়নি।

তবে এ ব্যাপারে মাগুরার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, তদন্ত প্রতিবেদন ওই কমকর্তার বিরুদ্ধে গেলে পুলিশ প্রশাসন তার বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।

আমিরুল মুকিম// বৃহস্পতিবার, ২৬ জুলাই ২০১৮// ১১ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error

নিউজ টি শেয়ার করুন :)

Instagram
LinkedIn
Share
Follow by Email