বিশ্ববিদ্যালয়ে মডেল কলেজ প্রকল্প গ্রহণ করা হবে : ভিসি ডঃ হারুন

মুহাম্মদ আতিকুর রহমান (আতিক), গাজীপুর জেলা প্রতিনিধি: গাজীপুরে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেটের ২০তম অধিবেশন ৩০ জুন শনিবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

এতে সভাপতিত্ব করেন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য (ভিসি) অধ্যাপক ডঃ হারুন অর রশিদ।

উপাচার্য তার বক্তব্যে বলেন, কলেজ শিক্ষার উন্নয়নে সারাদেশে নির্বাচিত কিছু সংখ্যক বেসরকারি কলেজকে মডেল কলেজে উন্নীত করার কর্মসূচি গ্রহণ করেছে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়। এ প্রকল্পে প্রথম পর্যায়ে ১৫টি কলেজকে তালিকাভুক্ত করা হয়েছে। ভবিষ্যতে এ তালিকা আরও সম্প্রসারিত হবে।

তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের রজতজয়ন্তী পালন, ট্যুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট ও এভিয়েশন সায়েন্সের মতো নতুন ডিসিপ্লিন খোলা, ২০২২ সাল পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের জন্য একাডেমিক ক্যালেন্ডার ঘোষণা, বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যোগে টেক্সট বই রচনা, ২০১৭ সালের জন্য কলেজ পারফরমেন্স র‌্যাংকিং, মাস্টারপ্ল্যান বাস্তবায়নে পদক্ষেপ গ্রহণ, ৩টি স্থায়ী আ লিক কেন্দ্র নির্মাণ, আগারগাঁওয়ে টাওয়ার ভবন নির্মাণ, কলেজ শিক্ষা মনিটরিং, শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের জন্য মোবাইল অ্যাপস তৈরি, ডিজাস্টার রিকভারি সেন্টারের জন্য যন্ত্রপাতি ক্রয়, সব কলেজকে হাই কানেক্টিভিটির আওতায় এনে লার্নিং ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম গড়ে তোলা, ভাইস-চ্যান্সেলর অ্যাওয়ার্ড প্রবর্তন ইত্যাদি বিষয়ে এ পর্যন্ত অগ্রগতি তুলে ধরেন।

অধিবেশনে বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক নোমান উর রশীদ ২০১৮-২০১৯ অর্থ বছরের জন্য রাজস্ব ও উন্নয়নসহ মোট ৫০৭ কোটি ২২ লাখ ৭৮ হাজার টাকার বাজেট পেশ করেন। যা সিনেট কর্তৃক গৃহীত হয়।

সিনেট অধিবেশনে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-উপাচার্য অধ্যাপক ডঃ হাফিজ মুহম্মদ হাসান বাবু, অধ্যাপক ডঃ মশিউর রহমান ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিনসহ অর্ধশতাধিক সিনেট সদস্য উপস্থিত ছিলেন।

অধিবেশনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন- বেগম হেপী বড়াল এমপি, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক এম. আব্দুস সোবহান, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডঃ মীজানুর রহমান, বঙ্গবন্ধু ডিজিটাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডঃ মুনাজ আহমেদ নূর, অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম, অধ্যাপক নজরুল ইসলাম, অধ্যাপক খন্দকার বজলুল হক, শিক্ষা সচিব মোঃ সোহরাব হোসাইন, অধ্যাপক সাদেকা হালিম, জাতীয় প্রেস ক্লাবের সভাপতি শফিকুর রহমান, সিলেট বিভাগীয় কমিশনার ডঃ নাজমুনারা খানুম, মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান প্রমুখ।

অধিবেশনে বার্ষিক বাজেট, বার্ষিক প্রতিবেদন, গত অধিবেশনের কার্যবিবরণী, সার্ভিস রুলে কতিপয় সংশোধনী ইত্যাদি পাসের পর সিনেটের সভাপতি সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে অধিবেশনের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

মুকিম// ১লা জুলাই , ২০১৮ ইং ১৭ই আষাঢ়, ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error

নিউজ টি শেয়ার করুন :)

Instagram
LinkedIn
Share
Follow by Email