বাংলাদেশ মানবাধিকার সংগঠনের কর্মকান্ড সকল সংগঠনের অনুকরণীয়-সিটি মেয়র

নিজস্ব সংবাদদাতা :

বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন বৃহত্তর চট্টগ্রাম অঞ্চল শাখা আয়োজিত ঈদ পুনর্মিলনী ও সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠান গতকাল বুধবার রাতে চট্টগ্রাম ক্লাবে অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন বৃহত্তর চট্টগ্রাম অঞ্চলিক শাখার সভাপতি আমিনুল হক বাবুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় চট্টগ্রাম সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন প্রধান অতিথি ছিলেন । এই সভায় অন্যদের মধ্যে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন দৈনিক বীর চট্টগ্রাম মঞ্চের সম্পাদক সৈয়দ উমর ফারুক।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিটি মেয়র বলেন, মানবাধিকার আন্দোলনে অর্থ মুখ্য নয় দরকার সদিচ্ছা, আন্তরিকতা। দেশে সব ক্ষেত্রে ভালো মন্দ দুটি আছে। কোনো ক্ষেত্রে ভালোর পাল্লা ভারী, কোথাও মন্দের। কোনো কোনো মানবাধিকার সংগঠনের কারণে মানবাধিকার লঙ্ঘিত হয়। সেই ক্ষেত্রে আমিনুল হক বাবু মানবাধিকার সংগঠনের কর্মকান্ড ভাবমূর্তি উজ্জ্বল। তাদের কার্যক্রমের মাধ্যমে অনেক শিশু-নারী উপকৃত হয়েছে, সুস্থ স্বাভাবিক জীবনে ফিরে এসেছে। এগুলো এ সংগঠনেরই বড় দৃষ্টান্ত।
অনুষ্ঠানে প্রধান আলোচকের বক্তব্যে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রি. জেনারেল মো. জালাল উদ্দিন বলেন, মানবাধিকার আন্দোলন শুধু বক্তৃতা, পোস্টার, ফেসবুকের পোস্ট নয়। এটি মনে প্রাণে উপলব্ধির বিষয়। এর জন্য প্রধান কাজ আত্ম সমালোচনা, আত্ম পরিশুদ্ধি ও নাগরিক দায়িত্ব পালন করা। মানবাধিকার কর্মীরা সাধারণ নন, তারা সাহসী, উদ্যমী। তিনি সামাজিক অবক্ষয়ের প্রভাব হাসপাতালের ওপর পড়ছে বলে মন্তব্য করে বলেন চট্টগ্রাম মেডিকেল হাসপাতাল ৫০০ শয্যা বিশিষ্ঠ। তারপরও এ হাসপাতালে প্রতিদিন প্রায় তিন হাজার রোগীকে চিকিৎসাসেবা দিতে হচ্ছে বিধায় পর্যাপ্ত রোগীর সেবা দিতে পারছিনা। এ প্রসঙ্গে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন আগামীতে আরো ৫০০ শয্যার ভবন ও ১০০ শয্যার বার্ন ইউনিট প্রতিষ্ঠিত হবে। চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজকে একটি বিশ্বমানের পেডিয়াট্রিক কার্ডিয়াক সার্জারি ও একটি শিশু হাসপাতাল নির্মাণের প্রধানমন্ত্রী আগ্রহের কথা তিনি সভায় উল্লেখ করেন।
অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত অতিথি ছিলেন সি প্লাস টিভির প্রধান সম্পাদক আলমগীর অপু এবং বাংলা নিউজ টোয়েন্টিফোর.কমের ব্যুরো প্রধান তপন চক্রবর্তী বক্তব্য রাখেন ।
অনুষ্ঠানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সংগঠনের নির্বাহী সভাপতি আল সাবেত দোভাষ সাগর, সহ-সভাপতি মনজরুল হক, সাধারণ সম্পাদক আসহাবুর রহমান, আসাদুজ্জামান খান, মশিউর রহমান, মো. বখতেয়ার উদ্দিন, চৌধুরী কেএম রিয়াদ, মঈনুদ্দিন কাদের লাভলু, মসিুদ পারভেজ, সাংবাদিক গোলাম সরওয়ার, হিমাদ্রী রাহা, আশরাফুল আলম আকাশ, এহসানুল হক, প্রমুখ।
পরে সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন চমেক পরিচালক ব্রি. জেনারেল মো. জালাল উদ্দিন, সি প্লাসের প্রধান সম্পাদক আলমগীর অপু, বাংলানিউজের ব্যুরো প্রধান তপন চক্রবর্তী, আশরাফুল আলম আকাশ, হিমাদ্রী রাহা, অ্যাডভোকেট সাবরিনা, আসাদুর রহমান, মনজুরুল হক, তানভীর শাহরিয়ার রিমন, ইঞ্জিনিয়ার ইমরান, মহসিন ভূঁইয়া, মাসুদ পারভেজ, এমদাদ চৌধুরী, শেখ ওয়ালিদ হাসান, সুদর্শন দাশ, রিগ্যান আচার্য, মশিউল আলম, হাজি চান্দু মিয়া, তানজিদ কামরান, মো. নাসির উদ্দিনের হাতে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error

নিউজ টি শেয়ার করুন :)

Instagram
LinkedIn
Share
Follow by Email