ববি পারভীনের ন্যায় সুশান্তঃ সন্দেহ মহেশ ভাট

বিনোদন ডেস্কঃ

সুশান্তের মানসিক অবস্থা নাকি মৃত্যুর আগে অভিনেত্রী পারভীন ববির মতোই ছিল। রহস্যের সূত্রপাত নির্মাতা মুকেশ ভাটের একটি কথার মাধ্যমে।

গত ১৪ই জুন মারা যান সুশান্ত সিং রাজপুত। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আত্মহত্যা করেছেন তিনি। কিন্তু এমন অস্বাভাবিক মৃত্যু মেনে নিতে পারছেন না সুশান্ত ভক্তকুল। রহস্যের গন্ধ পাচ্ছেন অনেকেই। তাই থামছে না গুঞ্জন এ অভিনেতাকে নিয়ে।

‘সুশান্ত সিং রাজপুত একবার ভাট সাহেবের অফিসে এসেছিলেন সড়ক ২ (Sadak 2) ছবিতে এতে কাজের আগ্রহ নিয়ে। কথা বলতে খুব ভালোবাসতেন। যেকোনো টপিক নিয়েই কথা বলার ক্ষমতা রাখতেন উনি। ফিজিক্স হোক বা সিনেমা কোনও দিকেই পিছিয়ে ছিলেন না তিনি। তার কথা শুনেই মহেশ ভাট বুঝে গেছিলেন, পারভীন ববির মতো অবস্থা হয়ে যাচ্ছে তার। শুধুমাত্র ঔষধই পারে তাকে সুস্থ করতে। রিয়া যতদিন তার সঙ্গে ছিলেন তাকে সময় মতো ঔষধ খাওয়ানোর চেষ্টা করতেন, কিন্তু সুশান্ত নাকি ঔষধ খেতে রাজি হতেন না।’ বিষয়টি জানার পর মহেশ ভাট রিয়াকে সুশান্তর থেকে দূরে থাকতে বলেছিলেন।

এখানেই দুয়ে দুয়ে চার মেলাচ্ছেন অনেকে। অভিনেত্রী কঙ্গোনা রাণৌত তো বলেই ফেলেছেন, ‘পারভীন ববির সঙ্গে কী ঘটেছিল সবাই জানে।’ কঙ্গোনা এখানে স্পষ্টতই অভিযোগের তীর ছুড়েছেন মহেশ ভাটের দিকে। কারণ মহেশ ভাটের সঙ্গে পারভীন ববির প্রেমের সম্পর্ক ছিল। সেই প্রেম পরিণতি পায়নি।

একইভাবে সুশান্তের প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তীর সঙ্গেও মহেশ ভাটের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ছিল। যে কারণে সুশান্ত রিয়ার সম্পর্ক অনেকদিন থেকেই ভালো যাচ্ছিল না। মৃত্যুর আগে বিষণ্ণতায় ভুগছিলেন সুশান্ত। গত এক বছর সুশান্ত সবার কাছ থেকে নিজেকে বিচ্ছিন্ন করে ফেলেন। মৃত্যুর আগে ঠিক এই কাজটি পরভীন ববিও করেছিলেন।

জীবনের করুণ এক পর্যায়ে ববি সিজোফ্রেনিয়ায় আক্রান্ত হন। বিষণ্ণতা এমনভাবে মনে চপে বসে, ধীরে ধীরে সবার কাছ থেকে নিজেকে আড়াল করে নেন। সুশান্ত সিং রাজপুতের মতো পারভীন ববিও মনে করতেন- তাকে মেরে ফেলার ষড়যন্ত্র চলছে। সহ-অভিনেতা অমিতাভ বচ্চন, বিল ক্লিনটনসহ বিভিন্ন বিখ্যাত ব্যক্তি ও সংস্থার বিরুদ্ধে তাকে হত্যার ষড়যন্ত্রের অভিযোগ তোলেন ববি। ধীরে ধীরে চার দেয়ালে নিজেকে বন্দি করে ফেলেন।

পারভীন ববির মৃত্যু ভক্তদের কাছে এখনো রহস্য হয়েই আছে। ভক্তদের বড় অভিযোগ তাদের প্রিয় নায়িকাকে মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেওয়া হয়েছে। তারা প্রিয় নায়ক সুশান্তের মৃত্যুর পর একই কথা বলছেন।

নাগরিকনিউজ/নাবিলা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error

নিউজ টি শেয়ার করুন :)

Instagram
LinkedIn
Share
Follow by Email