দেশের পাঁচ জেলায় পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ৭ মাদক বিক্রেতা

দেশের পাঁচ জেলায় `বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন সাতজন। বুধবার দিবাগত রাতে ফেনী, কুমিল্লা, নারায়ণগঞ্জ, মাগুরা ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায় পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে তারা মারা যান। তবে মাগুরায় দুইজন মাদক ব্যবসায়ী নিজেদের মাঝে গোলাগুলিতে মারা গেছেন বলে পুলিশ দাবি করেছে।

ফেনীর ফুলগাজী থানার পরিদর্শক (ওসি) হুমায়ুন কবির জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার ভোরে সীমান্তবর্তী এলাকায় অভিযান চালায় পুলিশ। এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক বিক্রেতারা গুলি ছোড়ে। পুলিশও পাল্টা গুলি ছুড়লে দুই মাদক বিক্রেতা আহত হয়। পরে তাদের ফেনী আধুনিক সদর হাসপাতালে পাঠানো হলে সেখানে তাদের মৃত্যু হয়।

নিহতরা হলেন-সামিরান শামীম উপজেলার আনন্দপুর মাইজ গ্রামের মোহাম্মদ মোস্তফার ছেলে ও অপরজন মনতলা গ্রামের মৃত ফটিক মিয়ার ছেলে মজনু মিয়া ওরফে মনির।

ঘটনাস্থল থেকে ২০০ বোতল ফেনসিডিল ও ৭০০ পিস ইয়াবা, একটি পিস্তল ও একটি কার্তুজ উদ্ধার করা হয়েছে।

এদিকে মাগুরায় গুলিবিদ্ধ দুই ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহতরা মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত বলে জানিয়েছে পুলিশ।

নিহত দুজন হলেন- মিজানুর রহমান কালু (৪০) এবং আইয়ুব হোসেন (৫০)।

মাগুরা সদর থানার ওসি ইলিয়াস হোসেন জানান, বুধবার মধ্যরাতে মাগুরা শহরের পারনান্দুয়ালি হাউজিং প্রজেক্ট এলাকায় দুই দল মাদক ব্যবসায়ীর মধ্যে গোলাগুলির খবর পেয়ে টহল পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দুজনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে। পরে তাদের মাগুরা সদর হাসপাতালে নেয়ার পথে মৃত্যু হয়।

তিনি বলেন, গুলিবিদ্ধ দুজন মাদক ব্যবসায়ী বলে এলাকার লোকজন জানিয়েছে।

এছাড়া ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় `বন্দুকযুদ্ধে’ মাদক ও হত্যা মামলার এক আসামি নিহত হয়েছেন। বুধবার দিবাগত রাত ২টার দিকে উপেজলার ধরখার ইউনিয়নের বনগজ স্টিল ব্রিজ সংলগ্ন পাকা রাস্তার মোড়ে এ ‘বন্দুকযুদ্ধের’ ঘটনা ঘটে। নিহত আমির উপজেলার চানপুর এলাকার মৃত সুরুজ খাঁর ছেলে।

বুধবার রাত সেহরির সময় নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জেও পুলিশের সঙ্গে `বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন এক ব্যক্তি।তার নাম সেলিম ওরফে ফেন্সি সেলিম।

পুলিশ জানিয়েছে, ঘটনাস্থল থেকে একটি একনলা বন্দুক, একটি সুইসগিয়ার, পাঁচ বোতল ফেনসিডিল, প্রায় পাঁচশ’ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশের ওসিসহ আরও ছয়জন আহত হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

সেলিম ৩ নম্বর ওয়ার্ডের সিদ্ধিরগঞ্জের নিমাইকাসারী বাঘমারা এলাকার আবুল কাশেম ওরফে গাঞ্জা কাশেমের ছেলে।

এদিকে কুমিল্লায় পৃথক ‘বন্দুকযুদ্ধে’ দুই ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন- বাবুল প্রকাশ ওরফে লম্বা বাবুল এবং রাজিব। তারা মাদক ব্যবসায়ী বলে দাবি করছে পুলিশ।

বুধবার দিবাগত রাত ১টার দিকে চৌদ্দগ্রাম উপজেলাধীন ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক সংলগ্ন আমানগন্ডা সলাকান্দা নতুন রাস্তার মাথায় কথিত এ `বন্দুকযুদ্ধে’ বাবুল প্রকাশ নিহত হন। এছাড়া রাত সোয়া ২টার দিকে সদর দক্ষিণ উপজেলার চৌয়ারা সংলগ্ন ঢাকা-চট্টগ্রাম পুরাতন ট্যাংক রোডের গোয়ালমথন এলাকায় নিহত হন রাজিব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error

নিউজ টি শেয়ার করুন :)

Instagram
LinkedIn
Share
Follow by Email