নিজের বাল্য বিয়ে নিজেই বন্ধ করল ৫ম শ্রেনীর আয়শা

জাহিদ রিপন, পটুয়াখালী প্রতিনিধি॥ পটুয়াখালীর বাউফলে নিজের বাল্যবিয়ে নিজেই পন্ড করে দিল প ম শ্রেনী শিক্ষার্থী আয়শা আক্তার(১২)। শনিবার (১৪ জুলাই) বাউফল থানায় এসে এসআই আনোয়ার হোেেসনের কাছে তাকে জোর পূর্বক বাল্য বিয়ে দেয়া হচ্ছে এমন অভিযোগ করলে বন্ধ হয়ে যায় বিয়ের সব কার্যক্রম। আয়শা বাউফল আদর্শ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প ম শ্রেনির ছাত্রী। বাউফল পৌরসভার ২ নং ওয়ার্ডে একটি ভাড়া বাসায় বাবা-মায়ের সঙ্গে বসবাস করেন ।

স্থানীয়রা জানায়, বাউফল সরকারি কলেজের চতুর্থ শ্রেনীর কর্মচারি সূর্য্যমনি গ্রামের শাহজাদা হোসেনর ছেলে মান্নানের সঙ্গে রাজাপুর গ্রামের কামাল নাগাসীর মেয়ে আয়শা আক্তারের বিয়ের সিদ্বান্ত চুরান্ত করে আয়শার বাবা। বিয়েতে রাজি হওয়ার জন্য চাপ দিলে আয়শা এ বিয়েতে রাজি না হওয়ায় তাকে মারধর করে তার বাবা। বাবার মারধর সহ্য করতে না পেরে শনিবার সকালে নিজেই থানায় উপস্থিত হয়। বাবা-মা জোড় করে তাকে বাল্য বিয়ে দিচ্ছেন বলে অভিযোগ করেন।

বাউফল থানার এসআই আনোয়ার হোসেন বলেন, মৌখিক অভিযোগের ভিত্তিতে আয়শার বাবাকে ডেকে এনেছি। আয়শার আঁঠারো বছর পূর্ন না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দেবেনা বলে গন্যমাান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে অঙ্গীকার করেছেন আয়শার বাবা কামাল।

মুকিম // শনিবার , ১৪ জুলাই ২০১৮, ৩০ আষাঢ় ১৪২৫

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error

নিউজ টি শেয়ার করুন :)

Instagram
LinkedIn
Share
Follow by Email