নানা-নানির কবরের পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত হলেন রাজীব হোসেন

ঢাকার কারওয়ান বাজারে দুই বাসের রেষারেষিতে ডান হাত হারানো তিতুমীর কলেজের ছাত্র রাজীব হোসেনকে আজ বুধবার(১৮ এপ্রিল) সকাল ৯টার দিকে জানাজা শেষে নানাবাড়িতে নানা-নানির কবরের পাশে দাফন করা হয়েছে। এর আগে মঙ্গলবার(১৭ এপ্রিল) দিনগত রাত একটার দিকে রাজীবের মরদেহ নিয়ে পটুয়াখালীর বাউফলে পৌঁছান স্বজনরা।

জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ আ স ম ফিরোজের একান্ত সহকারী আনিসুর রহমান জানান, আজ বুধবার সকাল ৯টার দিকে বাউফল উপজেলা পাবলিক মাঠে রাজীবের দ্বিতীয় নামাজের জানাজা শেষে উপজেলা সদরের দাসপাড়া গ্রামের নানাবাড়িতে রাজীবকে দাফন হরা হয়।

বাউফল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল ইসলাম জানান, চিফ হুইপ, পটুয়াখালীর জেলা প্রশাসক, জেলা পুলিশ সুপার, পৌরসভার মেয়রসহ প্রশাসনিক কর্মকর্তারা জানাজায় উপস্থিত ছিলেন।

গত সোমবার(১৬ এপ্রিল) দিনগত রাত ১২টা ৪০ মিনিটে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাজীব মারা যান। পরে মঙ্গলবার দুপুরে হাইকোর্ট প্রাঙ্গণে তাঁর প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজা শেষে বিকেলে পটুয়াখালীর উদ্দেশে রওনা হয় রাজীবের মরদেহবাহী গাড়ি।

রাজধানীর মহাখালীর সরকারি তিতুমীর কলেজের স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র রাজীব হোসেন গত ৩ এপ্রিল বিআরটিসির একটি দোতলা বাসে দাঁড়িয়ে যাচ্ছিলেন। ওই সময় তাঁর ডান হাতটি বাসের সামান্য বাইরে ছিল। হঠাৎ পেছন থেকে স্বজন পরিবহনের একটি বাস বিআরটিসি বাসের গা ঘেঁষে ওভারটেক করার সময় রাজীবের ডান হাত শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। পথচারীদের সহায়তায় তাঁকে দ্রুত শমরিতা হাসপাতালে নেয়া হয়। এরপর উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error

নিউজ টি শেয়ার করুন :)

Instagram
LinkedIn
Share
Follow by Email