দুর্যোগকালীন প্রস্তুতি ভালো থাকলে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ অনেক কম রাখা সম্ভব: ত্রাণমন্ত্রী

নিউজ ডেস্কঃ দেশে যেকোনো ধরনের দুর্যোগ মোকাবেলায় সরকারের প্রস্তুতি রয়েছে। দুর্যোগকালীন প্রস্তুতি ভালো থাকলে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ অনেক কম রাখা সম্ভব। যেটা এই সরকার গেল বন্যায় প্রমাণ করেছে। বললেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া।

সোমবার জেলা প্রশাসনের আয়োজনে রংপুর জেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কমিটির সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

মন্ত্রী আরও বলেন, যখনই কোনও দুর্যোগের খবর পাওয়া গেছে তখনই সেখানে ছুটে গেছে সরকারের লোকজন। সরকারের পূর্ব প্রস্তুতি ছিল বলেই কেউ না খেয়ে মরেনি।

সরকারের সকল দপ্তরের পাশাপাশি আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা আন্তরিকতার সঙ্গে কাজ করেছে বলেই দুর্গত মানুষের কাছে খাদ্য, প্রয়োজনীয় ওষুধ এবং ত্রাণসামগ্রী যথাসময়ে পৌঁছানো সম্ভব হয়েছে।

মায়া বলেন, সরকার প্রয়োজনীয় খাদ্য সরবরাহ অব্যাহত রেখে জনগণের ভোগান্তি সহনীয় পর্যায়ে রাখতে সম্ভাব্য সকল ধরনের প্রস্তুতি গ্রহণ করেছে। খাদ্য নিরাপত্তার জন্য খাদ্য আমদানি করছে সরকার। ফলে বাংলাদেশ এখন যেকোনো ধরনের প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলার সক্ষমতা অর্জন করেছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির কোষাধ্যক্ষ এইচ এন আশিকুর রহমান এমপি, রংপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফা, জেলা প্রশাসক এনামুল হাবীব, পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান বিপিএমসহ প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

মুকিম // মঙ্গলবার ,১৭ জুলাই ২০১৮ | ২ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error

নিউজ টি শেয়ার করুন :)

Instagram
LinkedIn
Share
Follow by Email