জলাবদ্ধতা নিরসনে আওতায় ড্রেন পরিস্কারের কাজ পরিদর্শন করছেন সিডিএ চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম

নিজস্ব সংবাদদাতাঃ ‘কাজের মাধ্যমেই জলাবদ্ধতা নিরসনের সুফল বয়ে আনবো’ নগরীর জলাবদ্ধতা নিরসনে সিডিএ সেনাবাহিনী ও পরামর্শকদের (কনসালটেন্ট) সঙ্গে নিয়ে প্রতিদিন নগরীর বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন করছেন চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান আবদুচ ছালাম। এসময় তিনি সরেজমিনে খাল ও ড্রেনের কাজ পরিদর্শনের পাশাপাশি এলাকাবাসীর সঙ্গে মতবিনিময় করে চলেছেন। এরই অংশ হিসেবে গতকাল (রবিবার) সকালে তিনি বৃষ্টি উপেক্ষা করে নগরীর কাপ্তাই রাস্তার মাথা থেকে কালুরঘাট এলাকার ড্রেনের কাজ পরিদর্শন করেন।

পরিদর্শনকালে তিনি এলাকাবাসীর উদ্দেশ্যে বলেন, ‘নগরীর জলাবদ্ধতা নিরসন কাজ একদিনে শেষ করা যাবে না। এজন্য কিছু সময় লাগবে। তবে নগরবাসীকে আশ্বস্ত করতে পারি, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুতি মোতাবেক নগরীর জলাবদ্ধতা নিরসন প্রকল্প বাস্তবায়নের আমরা নগরবাসীর সর্বাত্বক সহযোগিতা নিয়ে সফল হবো ইনশাল্লাহ। আমরা কাজে বিশ্বাস করি, কথায় নয় এবং সেই কাজের মাধ্যমেই জলাবদ্ধতা নিরসন করে নগরবাসীর জন্য সুফল বয়ে আনবো। সিডিএর এ যাবত বাস্তবায়িত প্রকল্পগুলো নগরবাসীকে যেভাবে স্বস্তি দিয়েছে জলাবদ্ধতা নিরসনেও আমরা সেভাবে নগরবাসীর কষ্ট লাঘবে সচেষ্ট হবো।‘

তিনি বলেন, ‘এ মুহুর্তে নগরীর অন্যতম প্রধান সমস্যা জলাবদ্ধতা। আমাদের প্রধান কাজ হচ্ছে পরিকল্পনামাফিক সেই জলাবদ্ধতা সমস্যা নিরসন করা। চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ সেনাবাহিনীর সহযোগিতায় গৃহিত পরিকল্পনা বাস্তবায়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। এক মুহুর্ত সময়েরও যাতে অপচয় না হয়, সে হিসেবে প্রতিটি এলাকার খাল, নালা, নর্দমা, ড্রেন খনন কাজ পরিদর্শন করে যাচ্ছি। একাজে আমরা এলাকাবাসীর পরামর্শকে গুরুত্ব দিচ্ছি।

তিনি আরো বলেন, ‘ইতোমধ্যে খাল, নালা পরিস্কারের পাশাপাশি নগরীর ভিতরে বিদ্যমান ড্রেন আগ্রাবাদ চৌমহনী বাজার সংলগ্ন, আগ্রাবাদ শান্তিবাগ এলাকার, পেনিনসুলা হতে জিইসির মোড় হয়ে পূর্বকোণ মোড পর্যন্ত, ২নং গেইট হতে মুরাদপুর হয়ে বহদ্দারহাট পর্যন্ত, বহদ্দারহাট হতে বাস টার্মিনাল হয়ে চান্দগাঁও খ্রিষ্টান পাড়া, কাপ্তাই রাস্তার মাথা থেকে কালুরঘাট পর্যন্ত রাস্তার উভয় পাশে, বহদ্দারহাট হতে এক কিলোমিটার পর্যন্ত রাস্তার উভয় পাশে সর্বমোট ১৫ কিলোমিটার ড্রেন নির্মাণ ও পরিস্কার কাজ সম্পূন্ন হয়েছে।’

এসময় অন্যাদের ৫নং মোহরা ওয়ার্ডের সাবেক কাউন্সিলর নাজিম উদ্দিন, মো. হোসেন. মো. হারুনসহ এলাকার গন্যমান্যব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

আমিরুল মুকিম // বুধবার, ২৫ জুলাই ২০১৮ // ১০ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error

নিউজ টি শেয়ার করুন :)

Instagram
LinkedIn
Share
Follow by Email