গাজীপুরে চাকরি দেয়ার প্রলোভনে প্রাইভেটকারে নারী ধর্ষণ, গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলায় এক নারীকে চাকরি দেয়ার কথা বলে মুঠোফোনে ডেকে এনে প্রাইভেটকারে তুলে ধর্ষণ চেষ্টা চালিয়েছে কবির হোসেন (৪৬) নামের এক লম্পট। পরে নারীর চিৎকারে স্থানীয়রা প্রাইভেটকারটি আটক করে কবির হোসেনকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে।

গেল সোমবার রাত ১২টার দিকে শ্রীপুর উপজেলার মাওনা চৌরাস্তা উড়াল সেতু সংলগ্ন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

অভিযুক্ত কবির হোসেন শ্রীপুর পৌরসভার উজিলাবো গ্রামের আব্দুল বারেকের ছেলে।

ভুক্তভোগী নারী জানান, তিনি প্রসাধনী পণ্য বিক্রির কাজ করেন। শ্রীপুর পৌর শহরের গড়গড়িয়া নতুন বাজার এলাকায় একটি বাসায় ভাড়া থাকেন তিনি। অভিযুক্তের সঙ্গে মাস খানেক আগে মোবাইল ফোনে তার পরিচয় হয়। এরপর থেকে চাকরির ব্যবস্থা করে দেয়ার কথা বলে প্রায়ই অভিযুক্ত কবির হোসেন তাকে ফোন দিতেন। সোমবার রাত ১০টার দিকে তাকে পোশাক কারখানায় চাকরির ব্যবস্থা করে দেয়ার কথা বলে মাওনা চৌরাস্তা ফ্লাইওভারের কাছে আসতে বলেন কবির। সেখানে যাওয়ার পর কবির হোসেন তাকে একটি প্রাইভেটকারে জোর করে উঠিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে।

পরে ওই নারীর চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে কবির হোসেনকে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে।

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান জানান, ট্রিপল নাইনে (৯৯৯) ধর্ষণ চেষ্টার তথ্য দিয়ে ফোন করা হয়। পরে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ ভিকটিমকে উদ্ধার ও অভিযুক্তকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। এসময় তার ব্যবহৃত প্রাইভেটকার জব্দ করা হয়। গ্রেপ্তার কবিরের নামে শ্রীপুর থানায় দুইটি মামলা রয়েছে।

এ ঘটনায় ওই নারী বাদী হয়ে গতকাল মঙ্গলবার শ্রীপুর থানায় একটি মামলা করেন। অভিযুক্তকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error

নিউজ টি শেয়ার করুন :)

Instagram
LinkedIn
Share
Follow by Email