গণআন্দোলনই বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করার একমাত্র পথ

 

বিএনপির কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান, সাবেক মন্ত্রী, মেয়র ও রাষ্ট্রদূত মীর মোহাম্মদ
নাছির উদ্দিন বলেছেন, ক্ষমতাসীন ফ্যাসিস্ট সরকার জিয়া পরিরবারকে নির্বাচন ও রাজনীতি
থেকে দূরে রেখে বিএনপিকে নিশ্চিহ্ন করতে চায় যাতে করে এদেশে বিরাজমান অঘোষিত
একনায়কতন্ত্রের বিরুদ্ধে কোন দেশপ্রেমিক শক্তি ন্যায্য প্রতিবাদ করতে না পারে।

আওয়ামীলীগ বেগম খালেদা জিয়ার কারাবাসকে দীর্ঘায়িত করার জন্য নানাভাবে ষড়যন্ত্র করছে উল্লেখ করে মীরনাছির বলেন, তীব্র গণআন্দোলনই বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করার একমাত্র পথ। সে লক্ষ্যে ব্যাপক
প্রস্তুতি নেয়ার জন্য তিনি বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের তৃণমূলের নেতাকর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান।

মীর নাছির আজ বিকাল ৫ টায় নগরীর চট্টেশ্বরী রোডস্থ তাঁর বাসভবন প্রাঙ্গণে বান্দরবান
জেলা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠন সমূহের নেতৃবৃন্দের সাথে আয়োজিত এক মতবিনিময় সভায়
প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখছিলেন।

জেলা বিএনপির সভাপতি ম্যামা চিং এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মাহবুবুর রহমান শামীম।

সভায় মীর নাছির আরও বলেন, বর্তমানে দেশের অর্থনীতিতে এক নজির বিহীন বিশৃঙ্খলা
চলছে। ব্যাংক সেক্টরে বিরাজমান অস্থিরতাই তার প্রমাণ।

অথচ সরকার নিজেদেরকে উন্নয়ন মহাসড়কে আছে বলে গলাবাজি করছে। বাংলাদেশে মানুষ মূলত এক দুঃশাসনের মহাজগতে আছে বলে উল্লেখ করে তিনি বলেন, দেশ বাঁচাতে আগামী নির্বাচনে খালেদা জিয়ার নেতৃত্বেদেশপ্রেমিক সরকার গঠনের বিকল্প নেই।

প্রধান বক্তার বক্তব্যে মাহবুবুর রহমান শামীম বলেন, সরকার আদালত, প্রশাসন সহ সবক্ষেত্রে
প্রভাব বিস্তার করে বেগম জিয়াকে কারাগারে রাখতে চায় যাতে জনগণের অংশগ্রহণ ছাড়া
আরেকটি ৫ই জানুয়ারি মার্কা নির্বাচন করতে পারে।

বেগম খালেদা জিয়াকে ছাড়া বাংলাদেশের মাটিতে আগামী দিনে কোন নির্বাচন হবে না উল্লেখ তিনি বলেন, বেগম জিয়ার মুক্তির পরই এদেশে জাতীয় নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। মতবিনিময় সভায় আরও বক্তব্য রাখেন বান্দরবান জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জাবেদ রেজা, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম সম্পাদক নুর মোহাম্মদ, বান্দরবান জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ফরিদ আহমদ, সাংগঠনিক সম্পাদক জসিম উদ্দিন, জেলা যুবদলের আহ্বায়ক আবু বক্কর, সদস্য সচিব শাহাদাত হোসেন, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি শফিকুর রহমান জুয়েল, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের যুগ্ম আহ্বায়ক চ নু মং, জেলা কৃষক দলের আহ্বায়ক টি মং, লামা পৌরসভা বিএনপির সভাপতি আব্দুর রব, সিনিয়র সহ-সভাপতি আবু তাহের, আলী কদম উপজেলা বিএনপির সভাপতি মাসুম আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক জুলফিকার আলী ভট্টু, সদর
উপজেলা বিএনপির আহ্বায়ক সরওয়ার জামান, যুগ্ম আহ্বায়ক নু মং, সদর পৌর বিএনপির সভাপতি নুরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক জাফর উল্লাহ, রোয়াংছড়ি উপজেলা বিএনপির সভাপতি মং চা থোয়াই, সিনিয়র সহ-সভাপতি অং চ মং, নাইক্ষ্যনছড়ি উপজেলা বিএনপি নেতা আব্দুল আলিম বাহাদুর ও ছুট্ট মেম্বারসহ নেতৃবৃন্দ।
সভায় আগামী ২৮ এপ্রিল বান্দরবান সদরে জেলা বিএনপির উদ্যোগে এক বিশাল কর্মী সভা অনুষ্ঠানের সিদ্ধান্ত সর্বসম্মতিক্রমে গৃহীত হয়।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error

নিউজ টি শেয়ার করুন :)

Instagram
LinkedIn
Share
Follow by Email