সকালে খুলনা শহরের মিয়া পাড়া রোডে নিজের বাসায় সাংবাদিকদের সামনে নজরুল ইসলাম মঞ্জু

খুলনায় বিএনপি প্রার্থীর নির্বাচনী প্রচার কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা

খুলনা মহানগর বিএনপির সভাপতি মঞ্জু বলেন, বুধবার রাত থেকে ভোর পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে শহরের বিভিন্ন জায়গা থেকে তার ভোটের প্রচারে যুক্ত ১৯ নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করেছে। আরও অনেকের বাড়িতে তল্লাশি করা হয়েছে, ফলে আতঙ্ক সৃষ্টি হয়েছে। এ পরিস্থিতিতে নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তারের প্রতিবাদে নির্বাচনী প্রচারের কার্যক্রম বন্ধ রাখা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে খুলনা শহরের মিয়া পাড়া রোডে নিজের বাসায় সাংবাদিকদের সামনে এই ঘোষণা দেন।

আগামী ১৫ মে এ নির্বাচন সামনে রেখে তফসিল ঘোষণার পর বিএনপির প্রার্থী মঞ্জুর পক্ষ থেকে ৯ দফা সুপারিশসহ একটি স্মারকলিপি দেওয়া হয়েছিল রিটার্নিং অফিসারের কাছে। খুলনার পাঁচ থানার ওসিসহ ‘দলবাজ পুলিশ কর্মকর্তাদের’ বদলির আবেদন করা হয়েছিল সেখানে। নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের দাবিও তার ছিল। কিন্তু নির্বাচন কমিশন একটি সুপারিশও বাস্তবায়ন করেনি জানিয়ে সম্প্রতি এক সংবাদ সম্মেলনে ভোটের পরিবেশ নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেন এই প্রার্থী।

বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীও গত ৩০ এপ্রিল ঢাকায় এক সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করেন, গাজীপুর ও খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচন সামনে রেখে ভোটারদের ‘ভয়-ভীতি দেখাতে’ বিরোধী নেতা-কর্মীদের ‘ঢালাওভাবে’ গ্রেপ্তার করা হচ্ছে।

অন্যদিকে আওয়ামী লীগ নেতারা বলছেন, বিএনপির প্রার্থীর কর্মীরা মাঠে নামতে অনাগ্রহী হলে তার দায় অন্য কেউ নেবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error

নিউজ টি শেয়ার করুন :)

Instagram
LinkedIn
Share
Follow by Email