কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে পৃথক স্থানে ছুরিকাঘাতে নিহত ২

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম ও দেবীদ্বার উপজেলায় শনিবার রাতে ছুরিকাঘাতে দুইজন নিহত হয়েছেন।

চৌদ্দগ্রামের ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে নিহত হন বদিউল আলম নামের এক হোটেল কর্মচারী। অন্যদিকে, দেবীদ্বারের ধামতি মধ্যপাড়ায় নিহত হন নুরুল ইসলাম নামের এক যুবক।

চৌদ্দগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু ফয়সল জানান, বদিউল আলম জগন্নাথদীঘির পাড়ের এক হোটেলের কর্মচারী। শনিবার রাত সাড়ে ১১টায় তিনি কাজ শেষে বাড়ি ফিরছিলেন। তখন ৩ মোটরসাইকেল আরোহী এসে তাকে একাধিকবার ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যান। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে চৌদ্দগ্রাম উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে যান। পরে মুমূর্ষু অবস্থায় কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যান। খবর পেয়ে পুলিশ তার মরদেহ উদ্ধার করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

তিনি জানান, বদিউল আলম চৌদ্দগ্রামের কেচকিমোড়া গ্রামের মৃত ইছমাইল মিয়ার ছেলে। এই ঘটনায় তার মা হালিমা বেগম বাদী হয়ে চৌদ্দগ্রাম থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

এদিকে দেবীদ্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান জানান, শনিবার মধ্যরাতে অর্থনৈতিক লেনদেন নিয়ে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে গুরুতর আহত হন নুরুল ইসলাম। আহত অবস্থায় তাকে প্রথমে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। রোববার(২৯ এপ্রিল) দুপুর সাড়ে ১২টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

তিনি জানান, নুরুল ইসলাম ধামতি ইউনিয়নের ইউপি সদস্য জাহাঙ্গীর আলমের ছোট ভাই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error

নিউজ টি শেয়ার করুন :)

Instagram
LinkedIn
Share
Follow by Email