কলাপাড়ায় ইউএনও’র হস্তক্ষেপে বন্ধ হলো বাল্যবিয়ে

জাহিদ রিপন, পটুয়াখালী প্রতিনিধি ॥ পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাও (ইউএনও) হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ে থেকে রক্ষা পেল নবম শ্রেনীর ছত্রী ফারজানা। সোমবার সন্ধ্যায় এ বিয়ের সকল প্রস্তুতি চলছিল। খবর পেয়ে ইউএনও ইউপি চেয়ারম্যান রিন্টু তালুকদার ও চৌকিদারের সহায়তায় বাল্য বিয়ে বন্ধ করে দেন। খাদিজা ওই গ্রামের পলাশ মিয়ার কন্যা।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার চম্পাপুর ইউনিয়নের মাছুয়াখালী গ্রামের শানু মুন্সীর ছেলে এনামুলের সাথে একই ইউনিয়নের গোলবুনিয়া গ্রামের পলাশ মিয়ার নবম শ্রেনীতে পড়–য়া মেয়ে ফারজানার বিয়ের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন করা হয়। সোমাবার আছর নামাজবাদ মুন্সী বাজার মসজিদে কলেমা হওয়ার কথা ছিল। সে ভাবেই চলছিল সব আয়োজন। বর পক্ষ মেয়ে পক্ষ সবাই এসছেন কলেমায় অংশ নিতে।

এরই মধ্যে কলাপাড়ার ইউএনও তানভির রহমান গোপন সংবাদের ভিতিত্তে খবর পায় বাল্য বিয়ের। পরে তিনি চস্পাপুর ইউনিয়নের চেয়্যারমান রিন্টু তালুকদারের সাথে যোগাযোগ করে বিয়ে বন্ধের নির্দেশ দেন। আর এ নির্দেশ পেয়ে চেয়্যারমান ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে বাল্য বিয়ে বন্ধ করে দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error

নিউজ টি শেয়ার করুন :)

Instagram
LinkedIn
Share
Follow by Email