এইচএসসি পরীক্ষার প্রথমদিনে সারাদেশে অনুপস্থিত সাড়ে ১৩ হাজার

প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগ ছাড়াই এইচএসসি ও সমমানের প্রথম দিনের (সোমবার) পরীক্ষা শেষ হয়েছে। তবে এদিন ১০টি শিক্ষা বোর্ডে মোট ১৩ হাজার ৭১৯ জন পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিলেন। এ হার শতকরা ১০ শতাংশের বেশি। এবার সারাদেশে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় ১৩ লাখ ১১ হাজার ৪৫৭ জন শিক্ষার্থীর অংশ নেওয়ার কথা ছিল।

অসদুপায় অবলম্বন করায় ৮৯ পরীক্ষার্থী এবং সাত শিক্ষককে বহিস্কার করা হয়েছে। আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।
জানা গেছে, সোমবার আট সাধারণ বোর্ডের অধীনে বাংলা (আবশ্যিক), সহজ বাংলা ১ম পত্র, বাংলা ভাষা ও বাংলাদেশের সংস্কৃতি ১ম পত্র, মাদরাসা বোর্ডের অধীনে কুরআন মাজিদ ও কারিগরি বোর্ডের অধীনে বাংলা ১ম পত্র (আবশ্যিক) পরীক্ষা হয়।

১০ শিক্ষা বোর্ডে অনুপস্থিত শিক্ষার্থীদের সংখ্যা বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, এইচএসসি পরীক্ষার প্রথমদিন ঢাকা বোর্ডে দুই হাজার ৪৮৯ জন শিক্ষার্থী অনুপস্থিত এবং অসুদাপায় অবলম্বন করায় সাত শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়েছে। রাজশাহী বোর্ডে অনুপস্থিতির ছিল এক হাজার ২৫৬ জন। কুমিল্লা বোর্ডে অনুপস্থিত এক হাজার ১৯ জন, যশোর বোর্ডে এক হাজার ৬১ জন, চট্রগ্রাম বোর্ডে ৯৯৮ এবং সিলেট বোর্ডে ৭০৬ জন অনুপস্থিত ছিল।
সিলেট বোর্ডে চার জন শিক্ষক ও এক শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়েছে। বরিশাল বোর্ডে অনুপস্থিতি ৬৫১ জন, বহিস্কার করা হয়েছে ছয় পরীক্ষার্থীকে, দিনাজপুর বোর্ডে অনুপস্থিতির সংখ্যা এক হাজার ৬৩ জন এবং বহিষ্কার দুই জন।

অন্যদিকে, মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডে শিক্ষার্থী অনুপস্থিতির সংখ্যা দুই হাজার ৪৮৬ জন, শিক্ষার্থী বহিষ্কারের সংখ্যা ৪০ জন, কারিগরি বোর্ডে অনুপস্থিতি এক হাজার ৯৮৯ জন, শিক্ষার্থী বহিষ্কার ৩২ জন এবং শিক্ষক বহিষ্কার হয়েছেন তিন জন। সব মিলিয়ে অনুপস্থিত শিক্ষার্থীর সংখ্যা ১৩ হাজার ৭১৮। বহিষ্কার করা হয় ৮৯ শিক্ষার্থী ও সাত জন শিক্ষক।

বোর্ড জানায়, এবার এইচএসসি পরীক্ষায় সারাদেশে মোট কেন্দ্র সংখ্যা দুই হাজার ৫৪১টি। এছাড়া বিদেশে সাত কেন্দ্রে এবার পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ২৯৯ জন। অন্যান্যবারের মতো এবারও সকাল ১০টায় পরীক্ষার শুরুতেই বহুনির্বচনি (এমসিকিউ) অংশ এবং পরে রচনামূলক অংশের পরীক্ষা হয়। ৩০ নম্বরের বহুনির্বচনি পরীক্ষার সময় ৩০ মিনিট এবং ৭০ নম্বরের সৃজনশীল পরীক্ষার সময় আড়াই ঘণ্টা।

পরীক্ষা শুরুর ২৫ মিনিট আগে কেন্দ্রীয়ভাবে লটারির মাধ্যমে প্রশ্ন সেট নির্ধারণ করে সব বোর্ডে অভিন্ন প্রশ্নে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। লিখিত পরীক্ষা শেষ হবে আগামী ১৩ মে। ১৪ মে ব্যবহারিক পরীক্ষা শুরু হয়ে শেষ হবে ২৩ মে। এর পরের ৬০ দিনের মধ্যে ফলাফল প্রকাশ করা হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error

নিউজ টি শেয়ার করুন :)

Instagram
LinkedIn
Share
Follow by Email