অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে দুদকের মামলায় অগ্রণী ব্যাংকের ৪ কর্মকতা কারাগারে

নিউজ ডেস্কঃ অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) দায়ের করা একটি মামলায় অগ্রণী ব্যাংকের চার কর্মকতাকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার (১৭ জু্লাই) মহানগর স্পেশাল জজ ও মহানগর দায়রা জজ আকবর হোসেন মৃধার আদালত তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন বলে বাংলানিউজকে জানান দুদকের আইনজীবী কাজী সানোয়ার হোসেন লাভলু।

অগ্রণী ব্যাংকের চার কর্মকতা হলেন, আগ্রাবাদ কর্পোরেট শাখার উপ-মহাব্যবস্থাপক মো. নুরুল আমিন, অবসরপ্রাপ্ত সিনিয়র প্রিন্সিপাল অফিসার উদয়ন কুমার বিশ্বাস, আগ্রাবাদ শাখার প্রিন্সিপাল অফিসার মো. শাহাজাদুল আলম ও প্রিন্সিপাল অফিসার ইয়াসিন ফারুকী।

অাডভোকেট কাজী সানোয়ার হোসেন লাভলু বলেন, অগ্রণী ব্যাংকের চার কর্মকতা অর্থ আত্মসাতের মামলায় আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করলে আদালত জামিন আবেদন নাকচ করে তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

তিনি জানান, অগ্রণী ব্যাংকের আগ্রবাদ শাখা থেকে ১৫৫ কোটি ৪৪ লাখ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে চলতি বছরের ১৬ মে ডবলমুরিং থানায় অগ্রণী ব্যাংকের পাঁচ কর্মকতা ও ইলিয়াস ব্রাদার্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সামসুল আলম সহ ১১ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন দুদকের প্রধান কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মো. সামসুল আলম।

মামলার আসামিরা হলেন, ইলিয়াস ব্রাদার্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সামসুল আলম, চেয়ারম্যান মো. নুরুল আলম, পরিচালক মো. নুরুল আবসার, পরিচালক জয়নাব বেগম, পরিচালক কামরুন্নাহার বেগম, পরিচালক তাহামিনা বেগম, অগ্রণী ব্যাংকের পাঁচ কর্মকতা হলেন, আগ্রাবাদ কর্পোরেট শাখার উপ-মহাব্যবস্থাপক মো. নুরুল আমিন, অবসরপ্রাপ্ত সিনিয়র প্রিন্সিপাল অফিসার উদয়ন কুমার বিশ্বাস, আগ্রাবাদ শাখার প্রিন্সিপাল অফিসার মো. শাহাজাদুল আলম, প্রিন্সিপাল অফিসার ইয়াসিন ফারুকী ও অবসরপ্রাপ্ত সহকারী মহাব্যবস্থাপক মো. জোনায়েদ বোগদাদী।

মামলা দায়েরের পর আসামিরা হাইকোর্ট থেকে ৬ সপ্তাহের অন্তবর্তীকালীন জামিন নেন বলে জানান কাজী সানোয়ার হোসেন লাভলু।

মুকিম // মঙ্গলবার ,১৭ জুলাই ২০১৮ | ২ শ্রাবণ ১৪২৫ বঙ্গাব্দ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error

নিউজ টি শেয়ার করুন :)

Instagram
LinkedIn
Share
Follow by Email