অবৈধভাবে পাহাড় কেটে পরিবেশ,মানুষ ও পর্যটন নগরীর কোন ক্ষতি বরদাস্ত করা হবে না : ত্রাণমন্ত্রী

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বলেছেন, অবৈধভাবে পাহাড় কেটে পরিবেশ ও মানুষের ক্ষতি বরদাস্ত করা হবে না। যারা নিজেদের আখের গোছাতে পাহাড় কেটে পরিবেশের বিপর্যয় ঘটাচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলে প্রতিহত করতে হবে।
বুধবার (২৫ এপ্রিল) সকালে কক্সবাজার বিয়াম মিলনায়তনে পাহাড় ধস সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি ও আগাম সতর্কতামূলক কার্যক্রম সম্পর্কিত কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।
মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বলেন, কক্সবাজারের সৌন্দর্যের অন্যতম উপাদান পাহাড় ও সমুদ্র সৈকত। দেশ বিদেশের পর্যটক ও সংবাদকর্মীদের নজর রয়েছে এখানে। তাই এ পর্যটন নগরীর যেকোন ক্ষতি বরদাস্ত করা হবে না।
তিনি বলেন, যেসব রোহিঙ্গারা পাহাড়ের ঢালে বসবাস করছে তাদের সরিয়ে নেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে।
এ সময় পাহাড়ের ঢালে বসবাসকারীদের অবিলম্বে অন্যত্র সরিয়ে দিতে জেলা প্রশাসনকে অনুরোধ করেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া।
দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. মোহসীনের সভাপতিত্বে কর্মশালায় সংসদ সদস্য আব্দুর রহমান বদি, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. শাহ্ কামাল, সাইক্লোন প্রিপেয়ার্ডনেস প্রোগ্রাম (সিপিপি) এর পরিচালক আহমেদুল হক, জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেনসহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা, সিপিপির স্বেচ্ছাসেবকরা ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন এনজিওর প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।
কর্মশালায় মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মো. মোহসীন।
এর আগে মন্ত্রী পাহাড় ধস সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধি ও আগাম সতর্কতামূলক কার্যক্রম সম্পর্কিত একটি র‌্যালিতে অংশগ্রহণ করেন। র‌্যালিটি জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে থেকে শুরু হয়ে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে বিয়াম ফাউন্ডেশনে এসে শেষ হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error

নিউজ টি শেয়ার করুন :)

Instagram
LinkedIn
Share
Follow by Email