অজ্ঞান পার্টির খপ্পরে পড়ে মুমুর্ষ অবস্থায় চমেকে ভর্তি

প্রতিদিনের মত চাকরিতে যাওয়ার জন্য বাসে করে নিজ কর্মস্থলে যাচ্ছিলেন কিন্তু পথিমধ্যে বাসের মধ্যেই কে বা কারা তাকে অজ্ঞান করে সাথে থাকা সবকিছু নিয়ে বাসে ফেলে রেখে চলে যায়।তার নাম হচ্ছে দুলাল কান্তি আচার্য্য; ৫০;পিতা-মৃত সুরেন্দ্র লাল আচার্য্য; সাং-উত্তর হালিশহর,আচার্য্য পাড়া, পেশায় তিনি চাকরীজীবি।

বিবিরহাট এর দিকে ইট ভাটায় কাজ করে বলে রোগীর আত্মীয় জানান। বাসের ড্রাইভার আইয়ুব এর বক্তব্য ছিল বিবিরহাটে আমরা যাত্রা বিরতি দিয়েছি। যাত্রীরা সবাই চা নাস্তা খাচ্ছিল কিন্তু একজন যাত্রী দেখি নিজ সিটে বসে আছে, আমি আর আমার সহকারী কাছে গিয়ে দেখি উনি অচেতন। তারপর উনাকে ফটিকছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রেরণ করি কিন্তু রোগীর অবস্থার অবনতি দেখে তারা চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে, বর্তমানে তিনি ৩ তলায় ১৬নং ওয়ার্ডে ভর্তি আছেন।

১৬নং ওয়ার্ডের ইন্টার্ন ডাক্তার শাম্মা বলেন, রোগীর অবস্থা আমরা ২৪ঘন্টা অবজারবেশন করছি এবং যথোপযুক্ত চিকিৎসা আমরা করব। ফটিকছড়ি থানার ওসি জাকের কে এ ব্যাপারে অবহিত করলে তিনি বলেন, এ ব্যাপারে আমরা যথোপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করব।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error

নিউজ টি শেয়ার করুন :)

Instagram
LinkedIn
Share
Follow by Email